fbpx

একটি সম্ভাবনাময় ক্যারিয়ার হোটেল ম্যানেজমেন্ট

কোন বিষয়ে শিক্ষিত হয়ে সুন্দর ক্যারিয়ার গড়ার স্বপ্ন কার না থাকে। একটি পেশা বেছে নিতে প্রয়োজন সঠিক ক্যারিয়ার পরিকল্পনা। একটি সঠিক সদ্ধিান্ত গড়ে দিতে পারে একটি সফল ক্যারিয়ার। বাংলাদেশকে প্রাকৃতিক ও ঐতিহ্যের সম্পদের রানী বলা হয়ে থাকে। দেশে অনেক জায়গা রয়েছে সেগুলো কাজে লাগিয়ে পর্যটন সেক্টরকে আরও ভালো করার সুযোগ রয়েছে।

পর্যটন শিল্পকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠছে অনেক নামিদামি তারকা হোটেল এবং রিসোর্ট। বাড়ছে দক্ষ কর্মী ও ব্যবস্থাপকের চাহিদা। দেশের বাইরেও আছে লোভনীয় চাকরির হাতছানি। তাই এইচএসসি পাসের পর ভর্তি হতে পারেন ব্যাচেলর  ইন ট্যুরিজম অ্যান্ড হোটেল ম্যানেজমেন্টে।

পড়াশুনা শেষ করে তারা দেশে বিদেশে সুনামের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে। মর্নিংটনে হোটেল ম্যানেজমেন্ট থেকে পড়াশুনা শেষ করে দেশ-বিদেশের আন্তর্জাতিক মানের হোটেল, মোটেল, রিসোর্ট, রেস্টুরেন্ট, এয়ারলাইন্স, ট্যুর কোম্পানি ও ট্রাভেল এজেন্সিতে কর্মরত আছে। এছাড়াও বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি এবং বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানে সফলতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছে।

ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের কোঅর্ডিনেটর সাব্বির আহমদ স্যার বলেন, বিগত কয়েক বছরে আমাদের বাংলাদেশও পর্যটন শিল্পে অপার সম্ভাবনা নিয়ে এগিয়েছে। টেকসই অর্থনীতির অন্যতম চালিকা শক্তিই হতে পারে আমাদের এই পর্যটন শিল্প খাত।

তিনি বলেন, পর্যটন শিল্প আমাদের অর্থনৈতিক, সামাজিক ও পরিবেশবান্ধব টেকসই কর্মসংস্থান এবং জীবনের মান উন্নয়নের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এবং অত্যাবশ্যক। বাংলাদেশের আকর্ষণীয় প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের কারণে পর্যটনে বিশাল সম্ভাবনা রয়েছে।

ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিষয়টি নতুন হলেও সমাজে ও কর্মক্ষেত্রে এর ব্যাপক চাহিদা থাকায় এর প্রতি শিক্ষার্থীদের আগ্রহ দিন দিন বাড়ছে। এই ক্ষেত্রে দক্ষ জনসম্পদ গড়ে তুলতে ২০১০ সালে বাংলাদেশে মর্নিংটন সর্ব প্রথম ৪ বছর মেয়াদী স্নাতক প্রোগ্রামে ছাত্রছাত্রী ভর্তি করানো শুরু করে। বর্তমানে মর্নিংটন ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সুনাম সর্বত্র।

এই বিভাগের একজন সফল প্রাক্তন ছাত্র আবু ফাত্তাহ লোশন , যিনি ওশান প্যারাডাইজ হোটেলে উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত আছেন। মর্নিংটন থেকে প্রাপ্ত শিক্ষা, শিক্ষকদের সহযোগিতা, অভিভাবক সুলভ যত্ন এবং আচরণ তাকে আজকের এই অবস্থানে আসতে যথেষ্ট অবদান রেখেছে তিনি বিশ্বাস করেন।

তিনি মনে করেন, এই বিষয়ে পড়াশোনা শেষ করে যে কেউ খুব অল্প সময়ের মধ্যেই তার ক্যারিয়ারকে উন্নতির চূড়ায় নিয়ে যেতে পারবেন। ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ছাত্রী সায়মা চেৌধুরী বলেন, বর্তমান সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে পুরুষদরে পাশাপাশি নারীরাও পর্যটন শিল্পে নিজেদেরকে নিয়োজিত করছেন।

অতীতের ধ্যান-ধারণাকে ভুল প্রমাণিত করে আজকের মেয়েরা এগিয়ে আসছেন পর্যটন শিল্পের বিকাশের জন্য। অনেক মেয়েরা আছেন যারা দেশী-বিদেশী আন্তর্জাতিক মানের হোটেল-রিসোর্টগুলোতে বড় বড় পদে র্কমরত আছেন।

তাদেরকে দেখেই, তাদের সামাজিক এবং পারিবারিক অবস্থানের কথা শুনেই অনুপ্রাণিত হয়ে এই শিল্পের উন্নয়নের নিমিত্তে, এই বিভাগে ভর্তি হয়ে পড়াশোনা শেষ করে অন্য অনেকের মত চাকরি অথবা নারীবান্ধব পর্য্টন শিল্প গড়তে নারী উদ্যোক্তা হওয়ার স্বপ্ন লালন করেন এই শিক্ষার্থী।

বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে আছে অনেক সুযোগ-সুবিধা। ক্রেডিট ট্রান্সফার, স্কলারশীপ, অনুদান, , শিক্ষাকালীন কর্মসংস্থানের মাধ্যামে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়।

আরও জানতে কল করতে পারেন ০১৭০৪১৯৮৮৬২ এই নম্বরে।

mcb

mcb

Leave a Replay

About

We are now offering range of Courses including Diploma in Retail Management and Diploma in Logistics & Supply Chain Management. Both Courses are in high demand in Bangladesh

Recent Posts

Follow Us

Weekly Tutorial

Close Menu